শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ০৩:৩৫ অপরাহ্ন

হামলার পর দুই সাংবাদিকের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির মামলা

রির্পোটারের নাম
  • খবর আপডেট সময় শনিবার, ৬ জুলাই, ২০২৪
  • ৩৮ এই পর্যন্ত দেখেছেন

সাংবাদিকের উপর হামলার ঘটনা ধামাচাপা দেওয়ার জন্য জামালপুরের বকশীগঞ্জে সাংবাদিকের উপর হামলাকারী সেই সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাসুমা ইয়াসমিন স্মৃতি দুই সাংবাদিকের বিরুদ্ধে আদালতে যৌন হয়রানির মামলা করেছেন। মামলার প্রধান স্বাক্ষী সাংবাদিকের উপর হামলাকারি দলের প্রধান সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাসুমা ইয়াসমিন স্মৃতির স্বামী আতিক সিদ্দিকী। আদালতের আদেশে মামলাটি তদন্ত করছেন জামালপুর জেলা পিবিআই এর এসআই রফিকুল ইসলাম। ৭ জুলাই বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জামালপুর জেলা পিবিআই পুলিশ সুপার এমএম সালাউদ্দিন।
জানা যায়, জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলার সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান মাসুমা ইয়াসমিন স্মৃতির বিরুদ্ধে অর্থ কেলেংকারীরর অভিযোগে জামালপুরের বিজ্ঞ আদালতে একটি মামলা হয়। সেই মামলার নিউজ করার উদ্যোগ নিলে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাসুমা ইয়াসমিন স্মৃতি ও তার স্বামীর ক্যাডার বাহিনি দৈনিক সমকাল সাংবাদিক জামালপুর জেলা প্রেসক্লাবের সদস্য মাসুদ উল হাসান ও দৈনিক দেশেরকন্ঠ সাংবাদিক এম এ সালাম মাহমুদের ক্ষুব্ধ হন। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ৭ জুন দিবাগত রাত অনুমান ১২ ঘটিকার সময় পেশাগত দায়িত্বপালন শেষে নিজ বাসায় ফেরার পথে সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান মাসুমা ইয়াসমিন স্মৃতি ও সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাসুমা ইয়াসমিন স্মৃতির স্বামী আতিক সিদ্দিকীর ক্যাডার বাহিনি কর্তৃক হামলার শিকার হন। উল্লেখিত দুই ব্যাক্তিসহ হামলাকারীরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে দৈনিক সমকাল সাংবাদিক মাসুদ উল হাসানকে হত্যা করার চেষ্টা করে। তার মোটর সাইকেল ভাংচুর ও শারিরীকভাবে লাঞ্চিত করে। হামলাকারীরা সাংবাদিক মাসুদের ক্যামেরা ও টাকা ছিনিয়ে নেয়। ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ ও সহকর্মী সাংবাদিকরা আহত অবস্থায় মাসুদকে উদ্ধার করে বকশীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেন। এ ঘটনায় সাংবাদিক মাসুদ বাদী হয়ে হামলাকারী সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান মাসুমা ইয়াসমিন স্মৃতি, তার স্বামী আতিক সিদ্দিকী, সহোদর ভাই সজল মিয়া ও বাবা মজিবুর রহমান। বকশীগঞ্জ থানার মামলা নং ০৮, তাং ০৮.০৬.২০২৪। ধারা-১৪৩,৩৫১,৩২৩, ৩০৭,৩৭৯,৪২৭,৫০৬ ও ১১৪। সাংবাদিক মাসুদ ছাড়াও মাসুমা ইয়াসমিন স্মৃতি ও তার স্বামী আতিক সিদ্দিকী হত্যাকান্ডের স্বীকার সাংবাদিক গোলাম রব্বানী নাদিমের উপরও হামলা করেছিলো।
দৈনিক সমকাল সাংবাদিক মাসুদ উল হাসানের উপর হামলার কিছুক্ষন পরেই হামলার ঘটনা ধামাচাপ দেওয়ার জন্য মাসুমা ইয়াসমিন স্মৃতি ৭ জুন রাতেই বকশীগঞ্জ থানায় উপস্থিত হয়ে সাংবাদিক মাসুদ উল হাসান ও সাংবাদিক সালাম মাহমুদের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান স্মৃতির অভিযোগ সাংবাদিক এস এম সালাম মাহমুদ ও সাংবাদিক মাসুদ উল হাসান সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান স্মৃতির নিজ বসত বাড়ীর রান্না ঘরে তাকে ধর্ষনের চেষ্টা করেন। ঘটনার তারিখ ও সময় উল্লেখ করেন ২০ মে রাত সাড়ে ৯ ঘটিকার সময়। ঘটনার প্রধান স্বাক্ষী সাংবাদিক মাসুদের উপর হামলাকারী দলের প্রধান ক্যাডার আতিক সিদ্দিকী, তার ছেলে ও সহোদর ভাই জাহিদুল ইসলাম সজল।
শুধু থানায় অভিযোগ করে থেমে থাকেনি বহু অপকর্মের হুতা সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাসুমা ইয়াসমিন স্মৃতি ও তার ক্যাডার স্বামী আতিক সিদ্দিকী। সাংবাদিক এসএম সালাম মাহমুদকে প্রধান আসামী ও সাংবাদিক মাসুদ উল হাসানতে ২নম্বর আসামী করে হামলার ২ দিন পর ১০ জুন জামালপুরের বিজ্ঞ আদালতে যৌন হয়রানির মামলা করেন সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাসুমা ইয়াসমিন স্মৃতি। ৭ জুন থানায় দায়ের করা অভিযোগে মাসুমা ইয়াসমিন স্মৃতি ঘটনার তারিখ উল্লেখ করেন ২০ মে রাত সাড়ে নয় ঘটিকা। ঘটনাস্থল সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান স্মৃতির নিজ বসত বাড়ীর রান্না ঘর। ১০ জুন আদালতে দায়ের করা মামলায় যৌন হয়রানির ঘটনার তারিখ ও সময় উল্লেখ করেন ৬ জুন দিবাগত রাত ১০ ঘটিকা। ঘটনাস্থল উল্লেখ করেন বকশীগঞ্জ পোস্ট অফিসের সামনে সিএন্ডবি রাস্তায়। আদালতের আদেশে মামলাটি তদন্তের দায়িত্ব পেয়েছেন জামালপুর জেলা পুলিশ পিআইবির এসআই রফিকুল ইসলাম।
এব্যাপারে দৈনিক দেশেরকন্ঠ সাংবাদিক এস এম সালাম মাহমুদ জানান, মাসুমা ইয়াসমিন কর্তৃক প্রদত্ত একটি চেকের টাকা আদায়ের জন্য ২৩ জুন জামালপুরের বিজ্ঞ আদালতে মাসুমা ইয়াসমিন স্মৃতির বিরুদ্ধে একটি মামলা হয়। আদালতের সমন পাওয়ার পর থেকেই আমার প্রতি ও সাংবাদিক সমাজের প্রতি ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে মাসুমা ইয়াসমিন স্মৃতি। ওই মামলার নিউজ সংক্রান্ত বিষয়কে কেন্দ্র করেই সাংবাদিকের উপর হামলার ঘটে। তিনি থানার অভিযোগে ঘটনা তারিখ সময় উল্লেখ করেছেন ২০ মে রাত সাড়ে ৯ ঘটিকা ও ৭ জুন রাত ১১টা ৪০ ঘটিকা। ২০ মে এর ঘটনাস্থল উল্লেখ করেছেন স্মৃতির নিজ বসতবাড়ির রান্নাঘর এবং ৭ জুন ঘটনারস্থল উল্লেখ করেছেন বকশীগঞ্জ পোস্ট অফিসের সামনে সিএন্ডবি রাস্তায়। আবার আদালতে দায়েরকৃত মামলায় ঘটনার তারিখ উল্লেখ করেছেন ৬ জুন রাত অনুমান ১০ঘটিকা। ঘটনাস্থল বকশীগঞ্জ পোস্ট অফিসের সামনে সিএন্ডবি রাস্তায়। মিথ্যা ঘটনা সাজিয়ে নাটক করতে গিয়ে তিনি নিজেই প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছেন। তার দায়েরকৃত মিথ্যা মামলায় স্বাক্ষী না দেওয়ায় তার মামলায় তার মানিত স্বাক্ষীকেও পিটিয়ে মারার হুমকি দিয়েছেন। হুমকির একটি অডিওকল ফাসঁ হয়েছে সোসাল মিডিয়ায়।
এব্যাপারে দৈনিক সমকাল সাংবাদিক জামালপুর জেলা প্রেসক্লাবের সদস্য মাসুদ উল হাসান জানান, সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাসুমা ইয়াসমিন স্মৃতির নানা অপকর্মের ধামাচাপার চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে তিন ও তার ক্যাডার বাহিনি আমাকে হত্যা করার উদ্দেশ্যে আমার উপর হামলা করে। ভাগ্যক্রমে আমি বেচেঁ যাই। তা না হলে সাংবাদিক গোলাম রব্বানী নাদিমের মতই আমাকেও লাশ হয়ে বাড়ী ফিরতে হত। হামলার ঘটনা ধামাচাপা দেওয়ার জন্যই একটি মিথ্যা যৌন হয়রানি মামলায় আমাকে ২ নম্বর আসামী করেছেন বহুঅপকর্মের হুতা সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাসুমা ইয়াসমিন স্মৃতি।
সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাসুমা ইয়াসমিন স্মৃতি জানান, আদালতে দায়ের করা মামলাই আমার বক্তব্য। মামলাতেই সব কিছুর বিবরণ দিয়েছি। মামলার বাইরে আমার কোন কথা নেই।
বকশীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ আবদুল আহাদ খান জানান, দৈনিক সমকাল সাংবাদিক মাসুদ উল হাসানের উপর হামলার ঘটনার মামলার সত্যতা তদন্ত করে আসামীদের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশীট দেওয়া হয়েছে। বিজ্ঞ আদালতেই সাংবাদিকের উপর হামলার বিচার হবে।
এব্যাপারে জামালপুর পিবিআই এর পুলিশ সুপার এম এম সালাউদ্দিন জানান, আদালতের আদেশে পিবিআই এর অফিসার মামলাটি তদন্ত করছেন। তদন্তে সত্য ঘটনাই তুলে আনবে পিবিআই এর তদন্ত কর্মকর্তা। এর পর প্রাপ্ত তথ্য যাছাই বাছাই করেই আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করা হবে।

দয়া করে খবরটি শেয়ার করুর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরিতে আরো যেসব খবর রয়েছে
© কপিরাইট ২০১৭ গণজয়
CodeXive Software Inc.
themesba-lates1749691102