শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ০৩:১৮ অপরাহ্ন

বিবাহ বার্ষিকীতে সেলুনে মিনি পাঠাগার প্রতিষ্ঠা

রির্পোটারের নাম
  • খবর আপডেট সময় রবিবার, ৩০ জানুয়ারী, ২০২২
  • ৫১৫ এই পর্যন্ত দেখেছেন

এম শাহীন আল আমীন।। জামালপুরের বকশীগঞ্জে নিজের প্রথম বিবাহ বার্ষিকীতে তরুন উপ্যানাসিক সুলতানুল আরেফীন আদিত্য সেলুনে “প্রাচুর্য” নামে একটি মিনি পাঠাগার প্রতিষ্ঠা করে দিয়েছেন। ৩০ জানুয়ারি রোববার দিবাগত রাতে জামালপুরের বকশীগঞ্জ পৌর শহরের সৌখিন জেন্টস পার্লার এন্ড সেলুনের দেওয়ালে মিনি পাঠাগারটি প্রতিষ্ঠা করেন। সেলুনের দেওয়ালের সেলফে সাজিয়ে দিয়েছেন সারি সারি বই।

জানা যায়,১৯৯৩ সালের ২৩ ডিসেম্বর জামালপুর জেলার বকশীগঞ্জ উপজেলার মেরুরচর ইউনিয়নের সর্দারপাড়া গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্ম গ্রহন করেন সুলতানুল আরেফীন আদিত্য। ছোট বেলা থেকেই পড়াশুনার পাশাপাশি লেখালেখির প্রতি প্রবল আগ্রহ ছিলো। ইতোমধ্যে তরুন উপ্যানাসিক সুলতানুল আরেফীন আদিত্য’র “সাঁকো এবং নীলপরী” ও “স্যাক্রিফাইস” নামক দুটি বই প্রকাশিত হয়েছে। যার মধ্যে সাঁকো এবং একটি নীলপরী উপন্যাসটি ব্যাপক পাঠক প্রিয়তা পায়।

উপ্যানাসিক সুলতানুল আরেফীন আদিত্য’র
প্রথম বিবাহ বার্ষিকীর দিনটি স্বরনীয় রাখতেই ওই পাঠাগার প্রতিষ্ঠা করেন তিনি। আলোর সঙ্গী বই,বইয়ের সঙ্গে রই’এই স্লোগান নিয়ে পাঠাগার প্রতিষ্ঠা করে জ্ঞানচর্চার নজির স্থাপন করেছেন তিনি।

সেলুন মালিক শ্রী নিতাই চন্দ্র দাস বলেন, সেলুনে এখন অন্যনরকম পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। আগে লোকজন অলস সময়ে মোবাইলে গান-বাজনা ও লুডু খেলে সময় পার করতো। এখন বইপড়ে সময় পার করছে। এই আনন্দের অনুভুতি ভাষায় প্রকাশ করার মত না।

এ ব্যাপারে সুলতানুল আরেফীন আদিত্য বলেন,সেলুনে অনেকেই দীর্ঘ সময় বসে অপেক্ষা করেন। তাদের জন্যই এই উদ্যেগ।

দয়া করে খবরটি শেয়ার করুর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরিতে আরো যেসব খবর রয়েছে
© কপিরাইট ২০১৭ গণজয়
CodeXive Software Inc.
themesba-lates1749691102